অনুসন্ধান - অন্বেষন - আবিষ্কার

চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন এসব কি করছে!

৩০৮

নিউজ হওয়ার সাথে সাথেই আপডেট পেয়ে যান আপনার ডিভাইসে, এখনি সাবষ্ক্রাইব করুন

.

চট্টগ্রাম মহানগরীর বিভিন্ন সড়ক মেরামত করছে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশের ঠিকারদাররা। রাস্তা মেরামতের নামে মাত্র কাজ সারছে এসব ঠিকাদার। আর উত্তোলন করে নিচ্ছে লাখ লাখ টাকা। বৃষ্টির পানিতে চলছে রাস্তা মেরামতের কাজ! পানিতেই ঢালছে বিটুমিন। এটি কতটুকু কার্যকর হবে তা সাধারণ নগরবাসীর প্রশ্ন। এসব ঠিকারদাররা রাস্তা মেরামতের নামে আসলে কি করছে সিটি কর্পোরেশনের কি কোন তদারকির প্রয়োজন নেই?

.

আজ শুক্রবার বিকালে নগরীর দেওয়ানহাট থেকে আগ্রাবাদ সড়কের এমনই একটি উন্নয়নের চিত্র ক্যামেরাবন্দি করেছেন চট্টগ্রামে কর্মরত একটি বেসরকারী টেলিভিশনের ক্যামেরাপার্সন সেলিম উল্লাহ। তিনি তার ফেসকুকে ছবি গুলো দিয়ে একটি ষ্ট্যার্টাস দিয়েছেন। আমরা তার সে বক্তব্য তুলে ধরছি।

.

তিনি লিখেছেন-

.

“চট্টগ্রাম সিটি এলাকায় বিভিন্ন সড়ক সংস্কারে কাজ করছে চসিক। সেই জন্য ধন্যবাদ মেয়র সাহেবকে। কিন্তু আমার একটা প্রশ্ন, পানি জমে থাকা অবস্থায় বিটুমিন দিয়ে কাজ করা কি যৌক্তিক? তাতে কী সুফল মিলবে! অর্থের অপচয় হচ্ছে কি? এ কাজ লোক দেখানো কি না! ছবিগুলো আজ শুক্রবার বিকাল তিনটায় নগরীর দেওয়ানহাট মোড় থেকে তোলা”।

নিউজ হওয়ার সাথে সাথেই আপডেট পেয়ে যান আপনার ডিভাইসে, এখনি সাবষ্ক্রাইব করুন

১১৫ মন্তব্য
  1. Ahmed Mostaque বলেছেন

    ঠিকাদারকে বিল নিতে হবে তো!!!

    1. Md Shafi Ullah বলেছেন

      ঠিকাদার কাজ টা করছে না ভাই,এইটা চ,সি ক এর নিজস্ব মালামাল এবং শ্রমিক দিয়ে করছে””””””

    2. Zaved Ahmed বলেছেন

      আপনি সম্ভবতঃ একজন ঠিকাদার আর আপনাদের মেয়র সাহেব সম্ভবতঃ জিব্রাইল ফেরেশতার বংশধর। সিটি কর্পোরেশন গুলোতে কি হয় এটা আমরা জানি, একটা কাজ করতে একজন ঠিকাদারকে কত পার্সেন্ট কোন টেবিলে দিতে হয় এটা ফিক্সড। আপনার একটি কথা মানলাম এটা হয়তোবা অতি জরুরী ভিত্তিতে কর্পোরেশন এর শ্রমিক দিয়ে করানো হচ্ছে কিন্তু টাকাটা কি পানিতে ঢালা হচ্ছে না ভাই।

  2. Mohammad Didarul Alam Didar বলেছেন

    শাক দিয়ে মাছ ডাকার মত?

  3. Mesba Uddin Haider বলেছেন

    মেয়র সাহেব টাকা কামানোর জন্য হল… এখন যদি টাকা income করতে পারে পরে কবে করবে?

  4. Liton Gazi বলেছেন

    রিপু করতেছে
    না না,,,,,,,,,,,,,,,,,,,
    তালি দিতেছে।
    দুটার একটা তো হবে ঠিকনা ভাই।

  5. Yousuf Ali বলেছেন

    পাবলিক নিয়া একটু খেলা খেলতেছে আর কি,,ও কিচু না পরে ঠিক হয়ে যাবে,,,ভরসা,,ভরসা,,,,

  6. Shuvashish Barua বলেছেন

    উন্নয়ন !

  7. Monir Hoque বলেছেন

    টাকা খাওয়ার ফন্দ তৈরি করতে হবে

  8. Sahed Alam বলেছেন

    Ny maama cyte kana mama valo….

  9. Sahed Alam বলেছেন

    Valooy… tho…valo…na….amder tex er taka bristir panite diccee….

  10. AK Azad বলেছেন

    উন্নয়ন

  11. Md Shahjahan Shaju বলেছেন

    হে হে হাসাইলেন!…!! আর কতই বা করবেন

  12. Imran Hossain Hira বলেছেন

    ভালো করে উন্নয়ন করছে

  13. Forhad Hossain বলেছেন

    khub moja pailam

  14. খবরের অন্তরালে বলেছেন

    সিটি মেয়র নাছিরের কি চোখে ছানি পড়ছে,,,, পাবলিকের টাকা এভাবে পানিতে ঢেলে দিচ্ছে,,,,,

  15. Ashish Goswami বলেছেন

    বাঃ বৃষ্টি র মধ্যে তো অনেক সুবিধা

  16. Nazrul Islam Rana বলেছেন

    2din pore rasta ses…

  17. Emran Khan Emran বলেছেন

    সব পাগল হয়‌‌েগেচ‌ে সিটি‌ মে‌য়র নাছি‌র ক‌‌িছুকরার নাই

  18. Md Sabbir Bhuiyan বলেছেন

    অাওয়ামীলিগের উননায়ন যেমন
    ওদের মেয়র দের ত এমন উননায়ন হবে।

    1. Mustafizur Rahman বলেছেন

      বিএনপি আমলেও এরকমই হয়েছে। আসলে আমলা আর টিকাদার মিলে সব আমলেই মাল কামাচ্ছে।

  19. Md Morshed Alam বলেছেন

    এটা হল চট্টগ্রামের উন্নয়েন অংশ!

  20. G.m. Alom বলেছেন

    সরকারেরর টাকার কি কোন মূল্য নাই

    1. Prakash Debnath বলেছেন

      টাকা হয়ছে জনগনের সরকারের না।তাই এই অযুক্তিক কাজের জন্য জনগনকে প্রতিবা করতে হবে।

  21. Tridib Barua Rana বলেছেন

    সংশ্লিষ্ট ওয়ার্ডের কমিশনারের এ ব্যাপারটা দেখা উচিৎ ছিল। তবে সংশ্লিষ্ট ঠিকাদারের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য চসিক মেয়রের দৃষ্টি আকর্ষন করছি।

  22. N Alam Dilu বলেছেন

    এইটাকে বলে উন্নায়ের জোয়ার

    1. Mustafizur Rahman বলেছেন

      বিএনপি আমলেও এরকমই হয়েছে। আসলে আমলা আর টিকাদার মিলে সব আমলেই মাল কামাচ্ছে।

  23. Ghiasuddin Ahmad বলেছেন

    পানির সংস্পর্শ পেলে বিটুমিনে কোনক্রমে ই bonding হবেনা। এটা সাধারণ রাজমিস্ত্রি ও জানে,ইঞ্জিনিয়ার সাহেবগন আরো ভাল জানেন। তারপর ও কাজ হচ্ছে। অবশ্য জুন ফাইনাল বলে কথা।

    1. Shadat Parvez Tuhin বলেছেন

      বিভ্রান্ত হওয়া থেকে দূরে থাকুন,
      আগে সত্যতা জানুন…

      চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের মাননীয় মেয়র মহোদয়ের নির্দেশক্রমে দৈনন্দিন রুটিন ওয়ার্কের অংশ হিসেবে চসিকের প্রকৌশল বিভাগ নগরীর ক্ষতিগ্রস্থ রা্স্তা ও সড়ক নিয়মিত সংস্কার করে থাকে। এ ধরনের সংস্কার কাজ পুরো বছর জুড়ে পরিচালিত হয়। জনদূর্ভোগ লাঘবের লক্ষে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন প্রকৌশল বিভাগ চলমান বর্ষা মৌসুমেও সড়ক সংস্কার ও প্যাচওয়ার্ক অব্যাহত রেখেছে। মূলত চসিক অপচয় করে না,প্যাচওয়ার্কের মাধ্যমে জনদূর্ভোগ এবং অপচয় কমানোর আপ্রান চেষ্টা করে। ৩০ জুন ২০১৭ খ্রি শুক্রবার প্রকৌশল বিভাগের ৫টি ডিভিশনে নগরীর বিভিন্ন সড়কে প্যাচওয়ার্ক কার্যক্রম পরিচালিত হয়েছে। আবহাওয়ার গতি প্রকৃতি,বৃষ্টি ও রৌ্দ্র বিবেচনায় রেখে অ্যাসফল্ট প্ল্যান্টের মাধ্যমে বিটুমিন মিশ্রিত মিক্সারগুলো তৈরি করা হয়। আবহাওয়া অনুকুলে না থাকলে ব্যাটস ফিলিংয়ের মাধ্যমে মেরামত কাজ করা হয় এবং আবহাওয়া ভাল থাকলে বিটুমিন মিশ্রিত পাথর কুচি বা মিক্সার দ্বারা সড়ক সংস্কারের কাজ পরিচালিত হয়। গত ৩০জুন ২০১৭ খ্রি শুক্রবারেও রৌদ্র থাকার কারনে অ্যাসফল্ট প্ল্যান্ট চালু করে মিক্সার তৈরি করে প্রকৌশল বিভাগের ৫টি ডিভিশনে প্যাচওয়া্র্ক কাজ শুরু করা হয়েছিল। ২নং ডিভিনে শেখ মুজিব সড়কে দুই ট্রাক মিক্সারের মাধ্যমে প্যাচওয়া্র্ক কাজ একেবারে শেষ পর্যায়ে চলে আসার পর হঠাৎ বৃ্ষ্টি শুরু হয়। বৃষ্টিতে এক হুইলব্যারো সমপরিমান মিক্সার ঠান্ডা হয়ে যাওয়ায় উক্ত মিক্সার গুলো প্যাচওয়ার্কে ব্যবহারের অনুপযোগী হয়ে পড়ে। তাই মিক্সার গুলো একেবারে ফেলে না দিয়ে কয়েকটি গর্ত ভরাট করার কাজে ব্যবহার করা হয়। উল্লেখ্য যে অ্যাসফল্ট প্ল্যান্ট থেকে মিক্সারগুলো ১৪০ ডিগ্রী সেন্টিগ্রেড তাপমাত্রায় তৈরি করা হয়। তারপর মিক্সারগুলো ট্রাকে করে বিভিন্ন ক্ষতিগ্রস্থ রাস্তায় নিয়ে যাওয়া হয়। সাধারনত মিক্সারের তাপমাত্রা ১০০ ডিগ্রী সেন্টিগ্রেড পর্যন্ত বজায় থাকলে তা ব্যবহার উপযোগী থাকে। ৩০ জুন ২০১৭ খ্রী ২নং ডিভিশনে প্যাচওয়ার্ক কাজের একেবারে শেষ পর্যায়ে হঠাৎ বৃষ্টি চলে আসলে ১ হুইলব্যারো সমপরিমান মিক্সারের তাপমাত্রা ১০০ ডিগ্রী সেন্টিগ্রেড কমে যায়। ফলে তা ব্যবহার অনুপযোগী হয়ে পড়ে। তাই উক্ত ১ হুইলব্যারো মিক্সার একেবারে ফেলে না দিয়ে গর্তে ঢেলে দেওয়া হয়। উক্ত বিষয়ে জনমনে বিভ্রান্তি সৃষ্টি না হওয়ার জন্যই এই লেখাটি লিখলাম।যে সকল সন্মানিত সাংবাদিক ভাইয়েরা উক্ত বিষয়টি নিয়ে স্বচিত্র প্রতিবেদন বা রির্পোট করেছেন তাঁদের উচিত ছিল রির্পোট বা প্রতিবেদনটি লেখার পূর্বে চসিক এর সংশ্লিষ্ট বিভাগের সাথে কথা বলা।আর ফেসবুকে যারা এই বিষয়টা নিয়ে নোংড়া রাজনীতি করছেন মাননীয় মেয়র ও চসিক এর বিরুদ্ধে বিষদগার করছেন সেটা পাগলের প্রলাপ ছাড়া কিছু নয়। আপনাদের অন্তর জ্বালাটি কোথায় সেটা আমরাসহ চট্টগ্রামবাসী ভালই যানেন।

      Raihan Yousuf ভাইয়ের ওয়াল থেকে
      সংগৃহিত

  24. Maruf Hasan বলেছেন

    Never

  25. Zahed Shapon বলেছেন

    হা হা হা…….
    উন্নয়নের কাজ? ছেপ দিয়ে লেপ দিচ্ছে।

    1. Samiha Rahman বলেছেন

      Right

  26. Golam Robbani বলেছেন

    হা হা! কি মজা! সোনার বাংলা!

    1. Mustafizur Rahman বলেছেন

      বিএনপি আমলেও এরকমই হয়েছে। আসলে আমলা আর টিকাদার মিলে সব আমলেই মাল কামাচ্ছে।

  27. Baigid Bostamee বলেছেন

    পুরা শরিরে ঘা,
    মলম দিব কোন জায়গায়???

  28. Haji Babu বলেছেন

    ঘুমান পরে দেখবেন অটোকমপ্লিট

  29. Shoaieb Malik বলেছেন

    সতবাগা জনগন কেনযে এসব দেখতে এবং লেখতে যায়।
    কিছুকন পর হয়তবা দেখবেন জিযেমবি বলে ওয়ারেট বের হয়ে গেছে।
    সুতরাং সাবধান থাকুন, নিরবে থাকুন, মুখ ও চোখ বুঝে থাকুন

  30. Kazi Abdul Malek বলেছেন

    কি মজা, কি মজা।

  31. Md Afaj বলেছেন

    জনগনকে বাঁশ দিচ্ছে।

  32. হনুফা আক্তার কেয়া বলেছেন

    জোড়া তালি আর কি

  33. Nurul Absar বলেছেন

    দেশের সম্পদ লুট পাটের একটা মাধ্যম

    1. Mustafizur Rahman বলেছেন

      বিএনপি আমলেও এরকমই হয়েছে। আসলে আমলা আর টিকাদার মিলে সব আমলেই মাল কামাচ্ছে।

  34. Akm Baktiar বলেছেন

    বুঝে শুনে স্টাট্যাস দিয়েন এইটা ঠিকাদারের কাজ নয়। কর্পোরেশনের নিজস্ব জনবল দিয়ে এই কাজ করছেন।

    1. MD Hamid বলেছেন

      কর্পোরেশনের নিজস্ব লোক কাজ করলে কি কাজের মান ঠিক হবে না?

    2. Akm Baktiar বলেছেন

      সেইটা হচ্ছে কথা কিন্তু ঠিকাদারের কথা বলে অযতা স্টাট্যাস দিয়েছেন তা নিয়ে কমেন্ট করেছি।

    3. Dipu Mia বলেছেন

      তাহলে তো কর্পোরেশনের সব বেটা চোর।

    4. Syeduzzman Santho বলেছেন

      টিকাদা‌রের ইজ্বত গে‌ছে রে ।

    5. Syeduzzman Santho বলেছেন

      এমন কাজ টিকাদার গন ক‌রেন না কোন‌দিন। হাহ হা হা

    6. Shadat Parvez Tuhin বলেছেন

      বিভ্রান্ত হওয়া থেকে দূরে থাকুন,
      আগে সত্যতা জানুন…

      চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের মাননীয় মেয়র মহোদয়ের নির্দেশক্রমে দৈনন্দিন রুটিন ওয়ার্কের অংশ হিসেবে চসিকের প্রকৌশল বিভাগ নগরীর ক্ষতিগ্রস্থ রা্স্তা ও সড়ক নিয়মিত সংস্কার করে থাকে। এ ধরনের সংস্কার কাজ পুরো বছর জুড়ে পরিচালিত হয়। জনদূর্ভোগ লাঘবের লক্ষে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন প্রকৌশল বিভাগ চলমান বর্ষা মৌসুমেও সড়ক সংস্কার ও প্যাচওয়ার্ক অব্যাহত রেখেছে। মূলত চসিক অপচয় করে না,প্যাচওয়ার্কের মাধ্যমে জনদূর্ভোগ এবং অপচয় কমানোর আপ্রান চেষ্টা করে। ৩০ জুন ২০১৭ খ্রি শুক্রবার প্রকৌশল বিভাগের ৫টি ডিভিশনে নগরীর বিভিন্ন সড়কে প্যাচওয়ার্ক কার্যক্রম পরিচালিত হয়েছে। আবহাওয়ার গতি প্রকৃতি,বৃষ্টি ও রৌ্দ্র বিবেচনায় রেখে অ্যাসফল্ট প্ল্যান্টের মাধ্যমে বিটুমিন মিশ্রিত মিক্সারগুলো তৈরি করা হয়। আবহাওয়া অনুকুলে না থাকলে ব্যাটস ফিলিংয়ের মাধ্যমে মেরামত কাজ করা হয় এবং আবহাওয়া ভাল থাকলে বিটুমিন মিশ্রিত পাথর কুচি বা মিক্সার দ্বারা সড়ক সংস্কারের কাজ পরিচালিত হয়। গত ৩০জুন ২০১৭ খ্রি শুক্রবারেও রৌদ্র থাকার কারনে অ্যাসফল্ট প্ল্যান্ট চালু করে মিক্সার তৈরি করে প্রকৌশল বিভাগের ৫টি ডিভিশনে প্যাচওয়া্র্ক কাজ শুরু করা হয়েছিল। ২নং ডিভিনে শেখ মুজিব সড়কে দুই ট্রাক মিক্সারের মাধ্যমে প্যাচওয়া্র্ক কাজ একেবারে শেষ পর্যায়ে চলে আসার পর হঠাৎ বৃ্ষ্টি শুরু হয়। বৃষ্টিতে এক হুইলব্যারো সমপরিমান মিক্সার ঠান্ডা হয়ে যাওয়ায় উক্ত মিক্সার গুলো প্যাচওয়ার্কে ব্যবহারের অনুপযোগী হয়ে পড়ে। তাই মিক্সার গুলো একেবারে ফেলে না দিয়ে কয়েকটি গর্ত ভরাট করার কাজে ব্যবহার করা হয়। উল্লেখ্য যে অ্যাসফল্ট প্ল্যান্ট থেকে মিক্সারগুলো ১৪০ ডিগ্রী সেন্টিগ্রেড তাপমাত্রায় তৈরি করা হয়। তারপর মিক্সারগুলো ট্রাকে করে বিভিন্ন ক্ষতিগ্রস্থ রাস্তায় নিয়ে যাওয়া হয়। সাধারনত মিক্সারের তাপমাত্রা ১০০ ডিগ্রী সেন্টিগ্রেড পর্যন্ত বজায় থাকলে তা ব্যবহার উপযোগী থাকে। ৩০ জুন ২০১৭ খ্রী ২নং ডিভিশনে প্যাচওয়ার্ক কাজের একেবারে শেষ পর্যায়ে হঠাৎ বৃষ্টি চলে আসলে ১ হুইলব্যারো সমপরিমান মিক্সারের তাপমাত্রা ১০০ ডিগ্রী সেন্টিগ্রেড কমে যায়। ফলে তা ব্যবহার অনুপযোগী হয়ে পড়ে। তাই উক্ত ১ হুইলব্যারো মিক্সার একেবারে ফেলে না দিয়ে গর্তে ঢেলে দেওয়া হয়। উক্ত বিষয়ে জনমনে বিভ্রান্তি সৃষ্টি না হওয়ার জন্যই এই লেখাটি লিখলাম।যে সকল সন্মানিত সাংবাদিক ভাইয়েরা উক্ত বিষয়টি নিয়ে স্বচিত্র প্রতিবেদন বা রির্পোট করেছেন তাঁদের উচিত ছিল রির্পোট বা প্রতিবেদনটি লেখার পূর্বে চসিক এর সংশ্লিষ্ট বিভাগের সাথে কথা বলা।আর ফেসবুকে যারা এই বিষয়টা নিয়ে নোংড়া রাজনীতি করছেন মাননীয় মেয়র ও চসিক এর বিরুদ্ধে বিষদগার করছেন সেটা পাগলের প্রলাপ ছাড়া কিছু নয়। আপনাদের অন্তর জ্বালাটি কোথায় সেটা আমরাসহ চট্টগ্রামবাসী ভালই যানেন।

      Raihan Yousuf ভাইয়ের ওয়াল থেকে
      সংগৃহিত

  35. Md Miraj Uddin Miraj বলেছেন

    ঈদ বোনাস

  36. Shipon Mahmud Naogaon বলেছেন

    ডিজিটাল দেশের কাজ কারবারতো ডিজিটালই হবে।

    1. Mustafizur Rahman বলেছেন

      বিএনপি আমলেও এরকমই হয়েছে। আসলে আমলা আর টিকাদার মিলে সব আমলেই মাল কামাচ্ছে।

  37. Dipu Mia বলেছেন

    কাজের ধরন দেখে বুঝেন না পাবলিকের ট্যাক্স এর টাকা মাইরা খাওয়ার পায়তারা করতেছে।ভোট ডাকাতি করে যে মেয়র হয়েছে তারতো জনগনের কাছে কোন জবাবদিহিতা নাই।

    1. Shadat Parvez Tuhin বলেছেন

      বিভ্রান্ত হওয়া থেকে দূরে থাকুন,
      আগে সত্যতা জানুন…

      চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের মাননীয় মেয়র মহোদয়ের নির্দেশক্রমে দৈনন্দিন রুটিন ওয়ার্কের অংশ হিসেবে চসিকের প্রকৌশল বিভাগ নগরীর ক্ষতিগ্রস্থ রা্স্তা ও সড়ক নিয়মিত সংস্কার করে থাকে। এ ধরনের সংস্কার কাজ পুরো বছর জুড়ে পরিচালিত হয়। জনদূর্ভোগ লাঘবের লক্ষে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন প্রকৌশল বিভাগ চলমান বর্ষা মৌসুমেও সড়ক সংস্কার ও প্যাচওয়ার্ক অব্যাহত রেখেছে। মূলত চসিক অপচয় করে না,প্যাচওয়ার্কের মাধ্যমে জনদূর্ভোগ এবং অপচয় কমানোর আপ্রান চেষ্টা করে। ৩০ জুন ২০১৭ খ্রি শুক্রবার প্রকৌশল বিভাগের ৫টি ডিভিশনে নগরীর বিভিন্ন সড়কে প্যাচওয়ার্ক কার্যক্রম পরিচালিত হয়েছে। আবহাওয়ার গতি প্রকৃতি,বৃষ্টি ও রৌ্দ্র বিবেচনায় রেখে অ্যাসফল্ট প্ল্যান্টের মাধ্যমে বিটুমিন মিশ্রিত মিক্সারগুলো তৈরি করা হয়। আবহাওয়া অনুকুলে না থাকলে ব্যাটস ফিলিংয়ের মাধ্যমে মেরামত কাজ করা হয় এবং আবহাওয়া ভাল থাকলে বিটুমিন মিশ্রিত পাথর কুচি বা মিক্সার দ্বারা সড়ক সংস্কারের কাজ পরিচালিত হয়। গত ৩০জুন ২০১৭ খ্রি শুক্রবারেও রৌদ্র থাকার কারনে অ্যাসফল্ট প্ল্যান্ট চালু করে মিক্সার তৈরি করে প্রকৌশল বিভাগের ৫টি ডিভিশনে প্যাচওয়া্র্ক কাজ শুরু করা হয়েছিল। ২নং ডিভিনে শেখ মুজিব সড়কে দুই ট্রাক মিক্সারের মাধ্যমে প্যাচওয়া্র্ক কাজ একেবারে শেষ পর্যায়ে চলে আসার পর হঠাৎ বৃ্ষ্টি শুরু হয়। বৃষ্টিতে এক হুইলব্যারো সমপরিমান মিক্সার ঠান্ডা হয়ে যাওয়ায় উক্ত মিক্সার গুলো প্যাচওয়ার্কে ব্যবহারের অনুপযোগী হয়ে পড়ে। তাই মিক্সার গুলো একেবারে ফেলে না দিয়ে কয়েকটি গর্ত ভরাট করার কাজে ব্যবহার করা হয়। উল্লেখ্য যে অ্যাসফল্ট প্ল্যান্ট থেকে মিক্সারগুলো ১৪০ ডিগ্রী সেন্টিগ্রেড তাপমাত্রায় তৈরি করা হয়। তারপর মিক্সারগুলো ট্রাকে করে বিভিন্ন ক্ষতিগ্রস্থ রাস্তায় নিয়ে যাওয়া হয়। সাধারনত মিক্সারের তাপমাত্রা ১০০ ডিগ্রী সেন্টিগ্রেড পর্যন্ত বজায় থাকলে তা ব্যবহার উপযোগী থাকে। ৩০ জুন ২০১৭ খ্রী ২নং ডিভিশনে প্যাচওয়ার্ক কাজের একেবারে শেষ পর্যায়ে হঠাৎ বৃষ্টি চলে আসলে ১ হুইলব্যারো সমপরিমান মিক্সারের তাপমাত্রা ১০০ ডিগ্রী সেন্টিগ্রেড কমে যায়। ফলে তা ব্যবহার অনুপযোগী হয়ে পড়ে। তাই উক্ত ১ হুইলব্যারো মিক্সার একেবারে ফেলে না দিয়ে গর্তে ঢেলে দেওয়া হয়। উক্ত বিষয়ে জনমনে বিভ্রান্তি সৃষ্টি না হওয়ার জন্যই এই লেখাটি লিখলাম।যে সকল সন্মানিত সাংবাদিক ভাইয়েরা উক্ত বিষয়টি নিয়ে স্বচিত্র প্রতিবেদন বা রির্পোট করেছেন তাঁদের উচিত ছিল রির্পোট বা প্রতিবেদনটি লেখার পূর্বে চসিক এর সংশ্লিষ্ট বিভাগের সাথে কথা বলা।আর ফেসবুকে যারা এই বিষয়টা নিয়ে নোংড়া রাজনীতি করছেন মাননীয় মেয়র ও চসিক এর বিরুদ্ধে বিষদগার করছেন সেটা পাগলের প্রলাপ ছাড়া কিছু নয়। আপনাদের অন্তর জ্বালাটি কোথায় সেটা আমরাসহ চট্টগ্রামবাসী ভালই যানেন।

      Raihan Yousuf ভাইয়ের ওয়াল থেকে
      সংগৃহিত

  38. Mohammad Ataur Rahman বলেছেন

    wow

  39. Nawsher Huda Fahim বলেছেন

    Dustami…….

  40. Shovon Talukder বলেছেন

    অসাধারন

  41. M N Azim Bhuiyan বলেছেন

    আগ্রাবাদ মা ও শিশু হাসপাতা‌লের বারান্দা

  42. Megh Ahmed বলেছেন

    বাজেট লুটপাট করার জন্য

  43. Mohammad Salahuddin Sanny বলেছেন

    Takar Opochoi Sada R Kisui Na.

  44. Moniruzzaman Liton বলেছেন

    উন্নয়নের নামে লুট-পাটের মহা উৎসব

    1. Mustafizur Rahman বলেছেন

      বিএনপি আমলেও এরকমই হয়েছে। আসলে আমলা আর টিকাদার মিলে সব আমলেই মাল কামাচ্ছে।

  45. Nurul Mahmud বলেছেন

    টাকা খাওয়া ধান্দা

  46. Omar Chowdhury বলেছেন

    Borshai. tandar. modde. kaj. korte. aram. tay. na. Ag. e. to. mayor. monjur. dosh. chilo. akon. ki. bolben. asle. amra. am janota. shoob. abaler. dool

  47. Nasru Akter বলেছেন

    a sob sorkarar choka pora na ki korca tar dolar mp montre?

  48. Reas Uddin Ahmed বলেছেন

    টাকা খাওয়ার জন্য।

    1. Mustafizur Rahman বলেছেন

      বিএনপি আমলেও এরকমই হয়েছে। আসলে আমলা আর টিকাদার মিলে সব আমলেই মাল কামাচ্ছে।

  49. Samsul Islam বলেছেন

    Wow Wow!!!

  50. MD Shafiullah বলেছেন

    sad

  51. আতাউল হক রাজু বলেছেন

    amader ke doka dy ???

  52. Nazmul Hasan বলেছেন

    ‌ডি‌জিটাল বাংলা‌দেশ গড়‌ছে?

    1. Mustafizur Rahman বলেছেন

      বিএনপি আমলেও এরকমই হয়েছে। আসলে আমলা আর টিকাদার মিলে সব আমলেই মাল কামাচ্ছে।

  53. Shertaz Khan বলেছেন

    সব কাজেই দোষ খোঁজা ঠিক নয়। কেন দেখছেন না রাস্তা উন্নয়নের কাজ চলছে ?

  54. MD Monir বলেছেন

    এইটা হলো ড়িজিটাল বাংলাদেশের উন্নয়ন এর নমুনা।

    1. Mustafizur Rahman বলেছেন

      বিএনপি আমলেও এরকমই হয়েছে। আসলে আমলা আর টিকাদার মিলে সব আমলেই মাল কামাচ্ছে।

  55. Md Shehab বলেছেন

    ভাই কি বলেন ডিজিটাল দেশের কাজ

    1. Mustafizur Rahman বলেছেন

      বিএনপি আমলেও এরকমই হয়েছে। আসলে আমলা আর টিকাদার মিলে সব আমলেই মাল কামাচ্ছে।

  56. Johirul Hoque Riman বলেছেন

    কাজ তো হচ্ছে।

  57. Md Shafi Ullah বলেছেন

    আমার মনে হয় না,এই টা কোন ঠিকাদার এর কাজ’আপনি যে স্টাট্যাস টা দিয়েছেন সেই টা ডালাও ভাবে ঠিকাদারদের দোষারূপ না করে জানা দরকার ছিল কোন ঠিকাদার এবং কোন প্রতিষ্ঠানের
    এর কাজ” আমি কাজের ছবি দেখে ১০০% বলতে পারি চ,সি,ক এর নিজস্ব মালামাল এবং উনাদের শ্রমিকদিয়ে
    কাজ টা করছে যার প্রমান এইখানে এক শ্রমিক চ,সি;ক, এর ইউনিফর্ম পরা” আপনার কাছে অনুরোধ ঠিকাদারদের নামে এই ধরনের ভুয়া নিউজ না করে,কোন ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের কাজ নাম উল্লেখ করবেন”তাহলে কর্তৃপক্ষ
    এবং”মেয়র মহোদয়” এর দৃষ্টান্তোমুলক শাস্তি দিতে পারবে”””””””

  58. Shafiqul Islam Razu বলেছেন

    বাজেটের টাকা ফেরত দিলে তো সুইচ ব্যাংকে টাকা জমাবে কে

  59. এম.আর.কে. চৌধুরী আবিদ বলেছেন

    সরকারের উন্নয়ন বিরোধী কর্মকাণ্ড তুলে ধরতেছেন মনে হয় সামন্য এইগুলা দিয়া???

    উন্নয়ন যেগুলো হচ্ছে তার তো কোন প্রচার দেখলাম না।

  60. Jahidul Islam Minto বলেছেন

    লেপের উপর চেপ

  61. Mohammad Ali বলেছেন

    আমাগো টাকার….. মারা

  62. MD Akram বলেছেন

    কাজ তো করছে, যেমনি হউক..!
    জনগণ ঘাস খাই না..?

  63. Nazimuddin Siam বলেছেন

    হায়রে বাঙালী।।।।।আফসোস

  64. Hanif Munshi বলেছেন

    মিঃ সফিউল্লা ভাই বাংলাদেশে ইউনিফম ভাড়া পাওয়া যায় যেখানে পুলিশের আর্মির পোষাক বাহিরে পাওয়া যায় আর এটাতো সাধারন

  65. Khan Emran Chemist বলেছেন

    nai mamar chaite kana mamai valo.ki r korbo digital bangladesh

  66. Muhammad Didarul Alam বলেছেন

    সুইস ব্যাংকে টাকা পাচারের অন্যতম মাদ্ধম।

  67. Bipul Chandra বলেছেন

    এরা লিপিষ্টিক মাখচে

  68. Hamidul Hoque Chy বলেছেন

    পানিতে ভিটুমিন মিশ্রিত কঙ্কর দিচ্ছেন। আরে ভাই, ধান্ধা করতে হবে। এইভাবে না করলে পুনরায় ঐ কাজ করা যাবে কিভাবে ?

  69. Zaved Ahmed বলেছেন

    পাবলিকের টাকা পানিতে ফেলতাছে।

  70. Baten Khan বলেছেন

    Digital system

  71. Rashed Arfat বলেছেন

    হালারা সব দিনের বেলায় গাজা খায়। আর রাতের বেলায় বাবা টানে তাই

  72. Md Monir বলেছেন

    ক্লিন সিটি গ্লিন সিটির নামে ডাসবিনের জায়গার দোকান / ঘর হয়েছে… R… ডাসবিন দখল করেছে রাস্তা…. ভালই চলছে দিনকাল

  73. Nur Nobi বলেছেন

    দুঃখের বিষয় এসব উন্নয়ণ বাংলাদেশেই হচ্ছে!!!

  74. Abid Hossen বলেছেন

    এইসব বলিয়েন না পাপ হপে পাপ??

  75. Jahidul Islam Mahmud Jim বলেছেন

    হেডা করতেসে??

  76. Sojol Sheik বলেছেন

    দেখার কেই নাই

  77. M-a Ali বলেছেন

    বতঁমান ডিজিটাল রাস্থা পাকা করন হচেচ

  78. ইচ্ছে ঘুড়ি বলেছেন

    all is well

  79. Hafez Moin Uddin বলেছেন

    পাবলিক শিকল বন্দি কিছু বলতে পারবে না শুধু দেখবে যে,,,,,,,,,,,,,

  80. A Rahman Rony বলেছেন

    দাউদের উপর চুলকানির মলম দিচ্চে।

  81. Shafiuddin Masum বলেছেন

    লুটপাট শুরু করছে।

  82. Rano Ahamed বলেছেন

    Eatto gulo bochor pocket thakey dieay dar korey tikey cilo….oi taka tultey hobey na??? Ki j bolen apnara…apni invest korley maf korten???

  83. Sheikh Sultan বলেছেন

    চট্রগ্রাম উন্নয়ন এর কাজ ছলিতেছে।

  84. Shadat Parvez Tuhin বলেছেন

    বিভ্রান্ত হওয়া থেকে দূরে থাকুন,
    আগে সত্যতা জানুন…

    চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের মাননীয় মেয়র মহোদয়ের নির্দেশক্রমে দৈনন্দিন রুটিন ওয়ার্কের অংশ হিসেবে চসিকের প্রকৌশল বিভাগ নগরীর ক্ষতিগ্রস্থ রা্স্তা ও সড়ক নিয়মিত সংস্কার করে থাকে। এ ধরনের সংস্কার কাজ পুরো বছর জুড়ে পরিচালিত হয়। জনদূর্ভোগ লাঘবের লক্ষে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন প্রকৌশল বিভাগ চলমান বর্ষা মৌসুমেও সড়ক সংস্কার ও প্যাচওয়ার্ক অব্যাহত রেখেছে। মূলত চসিক অপচয় করে না,প্যাচওয়ার্কের মাধ্যমে জনদূর্ভোগ এবং অপচয় কমানোর আপ্রান চেষ্টা করে। ৩০ জুন ২০১৭ খ্রি শুক্রবার প্রকৌশল বিভাগের ৫টি ডিভিশনে নগরীর বিভিন্ন সড়কে প্যাচওয়ার্ক কার্যক্রম পরিচালিত হয়েছে। আবহাওয়ার গতি প্রকৃতি,বৃষ্টি ও রৌ্দ্র বিবেচনায় রেখে অ্যাসফল্ট প্ল্যান্টের মাধ্যমে বিটুমিন মিশ্রিত মিক্সারগুলো তৈরি করা হয়। আবহাওয়া অনুকুলে না থাকলে ব্যাটস ফিলিংয়ের মাধ্যমে মেরামত কাজ করা হয় এবং আবহাওয়া ভাল থাকলে বিটুমিন মিশ্রিত পাথর কুচি বা মিক্সার দ্বারা সড়ক সংস্কারের কাজ পরিচালিত হয়। গত ৩০জুন ২০১৭ খ্রি শুক্রবারেও রৌদ্র থাকার কারনে অ্যাসফল্ট প্ল্যান্ট চালু করে মিক্সার তৈরি করে প্রকৌশল বিভাগের ৫টি ডিভিশনে প্যাচওয়া্র্ক কাজ শুরু করা হয়েছিল। ২নং ডিভিনে শেখ মুজিব সড়কে দুই ট্রাক মিক্সারের মাধ্যমে প্যাচওয়া্র্ক কাজ একেবারে শেষ পর্যায়ে চলে আসার পর হঠাৎ বৃ্ষ্টি শুরু হয়। বৃষ্টিতে এক হুইলব্যারো সমপরিমান মিক্সার ঠান্ডা হয়ে যাওয়ায় উক্ত মিক্সার গুলো প্যাচওয়ার্কে ব্যবহারের অনুপযোগী হয়ে পড়ে। তাই মিক্সার গুলো একেবারে ফেলে না দিয়ে কয়েকটি গর্ত ভরাট করার কাজে ব্যবহার করা হয়। উল্লেখ্য যে অ্যাসফল্ট প্ল্যান্ট থেকে মিক্সারগুলো ১৪০ ডিগ্রী সেন্টিগ্রেড তাপমাত্রায় তৈরি করা হয়। তারপর মিক্সারগুলো ট্রাকে করে বিভিন্ন ক্ষতিগ্রস্থ রাস্তায় নিয়ে যাওয়া হয়। সাধারনত মিক্সারের তাপমাত্রা ১০০ ডিগ্রী সেন্টিগ্রেড পর্যন্ত বজায় থাকলে তা ব্যবহার উপযোগী থাকে। ৩০ জুন ২০১৭ খ্রী ২নং ডিভিশনে প্যাচওয়ার্ক কাজের একেবারে শেষ পর্যায়ে হঠাৎ বৃষ্টি চলে আসলে ১ হুইলব্যারো সমপরিমান মিক্সারের তাপমাত্রা ১০০ ডিগ্রী সেন্টিগ্রেড কমে যায়। ফলে তা ব্যবহার অনুপযোগী হয়ে পড়ে। তাই উক্ত ১ হুইলব্যারো মিক্সার একেবারে ফেলে না দিয়ে গর্তে ঢেলে দেওয়া হয়। উক্ত বিষয়ে জনমনে বিভ্রান্তি সৃষ্টি না হওয়ার জন্যই এই লেখাটি লিখলাম।যে সকল সন্মানিত সাংবাদিক ভাইয়েরা উক্ত বিষয়টি নিয়ে স্বচিত্র প্রতিবেদন বা রির্পোট করেছেন তাঁদের উচিত ছিল রির্পোট বা প্রতিবেদনটি লেখার পূর্বে চসিক এর সংশ্লিষ্ট বিভাগের সাথে কথা বলা।আর ফেসবুকে যারা এই বিষয়টা নিয়ে নোংড়া রাজনীতি করছেন মাননীয় মেয়র ও চসিক এর বিরুদ্ধে বিষদগার করছেন সেটা পাগলের প্রলাপ ছাড়া কিছু নয়। আপনাদের অন্তর জ্বালাটি কোথায় সেটা আমরাসহ চট্টগ্রামবাসী ভালই যানেন।

    Raihan Yousuf ভাইয়ের ওয়াল থেকে
    সংগৃহিত

  85. Sagar Sagar বলেছেন

    উন্নয়ন

  86. Syeed Rahman বলেছেন

    ভাই উন্নয়নের জোয়ার হচ্ছে

  87. সাহেদ চিটাগং বলেছেন

    Hahaha ccc amader satey moskara korchay Eid er moskara

  88. মনির হোসেন রাজু বলেছেন

    চেপ দিয়ে লেপ মারতেছে কি আর করবে

  89. Md Rony Mollah বলেছেন

    চলিতেছে লুটপাট

  90. Md Munna Ahmed বলেছেন

    sala ra nadan tai vai

  91. Rima Mahmud বলেছেন

    মেয়র সাহেবের কান ধরে ওকে দিয়েই এসব ঠিক করানো দরকার ।।।।। ??

  92. মুহাম্মদ পলাশ বলেছেন

    টাকা খাওয়ার জন্য